বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১, ২০২০
Home খেলাধুলা ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্সের মহাসচিব হিসেবে নিয়োগ পেলেন বাংলাদেশের ড. জাহিদ

ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্সের মহাসচিব হিসেবে নিয়োগ পেলেন বাংলাদেশের ড. জাহিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে অধ্যাপক ড. জাহিদ হককে আন্তঃসরকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্স এর মহাসচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্স এর মহাসচিব হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় অধ্যাপক ড. জাহিদ হককে আন্তরিক শুভেচছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

মঙ্গলবার এক অভিনন্দন বার্তায় প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে অধ্যাপক ড. জাহিদ হককে ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্স এর মহাসচিব পদে মনোনীত করায় আমি আনন্দিত ও গর্বিত। আমি আশা করি, তার এই দায়িত্ব প্রাপ্তির মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশের সাথে World Sports Alliance এর সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হবে এবং দেশের ক্রীড়াঙ্গন এগিয়ে যাবে। আমি ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস এলায়েন্স ও আইজিওর ক্ষেত্রে তাঁর নতুন অবস্থানের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে তাকে অভিনন্দন জানাই এবং পরবর্তী দিনগুলিতে তাঁর সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করি।

ইতোপূর্ব প্রফেসর ড.হক এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের জন্য ডাব্লুএসএর সিনিয়র উপদেষ্টার পদ অলংকৃত করেছেন। বহুমাত্রিক প্রতিভাধর ড. হক যেসব গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার উপদেষ্টা বা সিনিয়র গভর্নিং বডির সদস্য হিসাবে অনন্য অবদান রেখে চলেছেন সেসব ভূমিকার মধ্যে আসিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিকের চ্যান্সেলর,আসিয়ান অঞ্চলের জন্য ব্রিটিশ আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা, ফ্লোরিডা ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এশিয়ার প্রধান সমন্বয়ক হিসাবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

পেশায় একজন দক্ষ কুটনীতিক ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসাবে অধ্যাপক ড. জাহিদ পিএইচডি, ডি.লিট,ডি এসসি,এফএএফপি (যুক্তরাষ্ট্র), এফআরএসপিএইচ (যুক্তরাজ্য) এর মতো সর্ব্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন।

প্রফেসর ড. জাহিদ হক একজন গবেষক, কলাম লেখক এবং একজন একনিষ্ঠ মানবকর্মী। বিশ্বজুড়ে মানবিক কাজে দ্ব্যর্থহীন,স্পষ্ট ও সক্ষম প্রচেষ্টার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন সরকার থেকে তাঁকে সর্বোচ্চ ও বিরল সম্মান প্রদান করা হয়েছে, যা আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। তিনি সেন্ট জন থেকে নাইট কমান্ডার উপাধি, দাতো ‘এবং দাতো’ সেরি হিসাবে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপিন এর রাজপ্রাসাদ হতে রাজকীয় উপাধি প্রাপ্ত হন। অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল অফ হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড লিবার্টিজের সর্বোচ্চ মানবাধিকার সম্মান ও মহাত্ন্যা গান্ধি সন্মাননা ও রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালাম সন্মাননায় ভূষিত ও আখ্যায়িত হন।

তাঁর এই সন্মানজনক কৃতিত্বের জন্য এবং বাংলাদেশের কৃতি সন্তান হওয়ায় আমরা অত্যন্ত গর্বিত। তাঁর প্রধান দায়িত্ব হচ্ছে ক্রীড়া কুটনীতি ও এসডিজি বাস্তবায়ন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

যুব উন্নয়নে কর্মসংস্থান ব্যাংকের ‘বঙ্গবন্ধু যুব ঋণ’ কার্যকর পদক্ষেপ: স্পিকার

নিজস্ব প্রতিবেদকজাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সুযোগ ও সক্ষমতার সমন্বয়ে যুব সমাজকে কাজে লাগিয়ে দেশ ও জাতি এগিয়ে যাবে।...

প্রতিষ্ঠার ৪৩ বছরে বিএনপি

বিশেষ প্রতিনিধি টানা একযুগেরও বেশি সময় ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকায় একদিকে যেমন মামলা-হামলা আর দমন-পীড়নের চাপ, অন্যদিকে দলের নেতা-কর্মীদের...

প্রণব মুখার্জি আর নেই

ডেস্ক রিপোর্ট ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৮৫ বছর।

১ সেপ্টেম্বর থেকে গণপরিবহনে আগের ভাড়া: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে গণপরিবহনে আগের নির্ধারিত ভাড়ায় ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। শনিবার...

Recent Comments